একসঙ্গে দুই প্রেমিকাকে বিয়ে করলেন তরুণ

দুজনের সঙ্গে টানা চার বছর প্রেম করেছেন অর্জুন। দুই প্রেমিকার কেউই কিছু টের পায়নি। অবশেষে কাউকে না ঠকাতে দুজনকেই বিয়ের চিন্তা করেন তিনি। পরে উভয় পরিবারকে অনেক কষ্টে রাজি করিয়ে অবশেষে দুই প্রেমিকাকেই একইসঙ্গে বিয়ে করেছেন। ভারতের তেলেঙ্গানা রাজ্যের আদিলাবাদ জেলার জ্ঞানপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে। গত ১৪ জুন একই মন্দিরে এক আসরেই তার বিয়ের কাজ সম্পন্ন করা হয়।

জানা গেছে, অর্জুন নামে ওই তরুণ প্রথমে তার এক আত্মীয়ের মেয়ে উষা রানীর প্রেমে পড়েন। পরে অর্জুনের আরেক আত্মীয়ের মেয়ে সুরেখাকেও ভালো লেগে যায় তার। দুজনের সঙ্গেই গোপনে চার বছর প্রেম করেছেন অর্জুন। দুই প্রেমিকার একজনও এ ব্যাপারে কিছু টের পাননি।

পরে বিয়ের সিদ্ধান্ত নিলে প্রথমে অর্জুন তার মা-বাবাকে রাজি করান। পরে রাজি করান উষা আর সুরেখার মা-বাবাকে। অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে সবাইকে রাজি করার পর দুই প্রেমিকার সঙ্গে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন অর্জুন। দুই প্রেমিকাকে একসঙ্গে বিয়ে করার বিষয়টি বেশ ইতিবাচকভাবেই নিয়েছেন অনেকে।

এ ব্যাপারে সেখানকার গোত্র প্রধান জানিয়েছেন, যেহেতু পাত্রীরা একজনকে বিয়ে করতে রাজি হয়েছেন এবং পাত্র আর পাত্রীদের পরিবারের কোনো আপত্তি নেই তাই আমরা বিয়ের অনুমতি দিয়েছি।

এক যুবকের সঙ্গে দুই প্রেমিকার এক সঙ্গে বিয়ের ঘটনা এটিই প্রথম নয়। এর আগে গত জানুয়ারিতে চান্দু মুরিয়া নামে এক যুবক তার দুই প্রেমিকা সুন্দরী কাশ্যপ এবং হাসিনা বাঘেলকে একই দিনে, একই মন্ডপে বিয়ে করেন সব সামাজিক রীতি মেনে। আদিবাসীদের মধ্যে এ ধরনের বিয়ে প্রচলন আছে।

সূত্র : টাইম নাউ নিউজ