শিরোনাম:

করোনায় মৃত স্ত্রীকে ফেলে পালালো স্বামী

চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা আক্রান্ত হয়ে আসমা আক্তার নামের এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়। পরে স্বামী মোজাম্মেল হক তাঁর লাশ ফেলে পালিয়ে যান।

নগরীর আগ্রাবাদ মৌলবীপাড়া এলাকার ওই ব্যক্তির মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়ার পর কোয়ান্টাম ফাউন্ডেশন লাশটি দাফন করে।

চমেক পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক জহিরুল ইসলাম জানান, গতকাল বুধবার রাতে আসমা আক্তারকে তাঁর স্বামী চমেক হাসপাতালে ভর্তি করেন। মধ্যরাতে মারা যান আসমা। পরে খোঁজ করেও তাঁর স্বামীর কোনো খোঁজ পায়নি পুলিশ।

এদিকে, চট্টগ্রামে আজ আরও ৭১৩ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। এটি ছিলো এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ আক্রান্ত। মারা গেছে ৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে দুই হাজার ১০৯টি নমুনা পরীক্ষায় এসব করোনা শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে মোট আক্রান্ত ৬২ হাজার ৯১৩ জন।

আজ বৃহস্পতিবার সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনের তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় চট্টগ্রামে দুই হাজার ১০৯টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। এতে নতুন করে করোনা শনাক্ত হয়েছে রেকর্ড সংখ্যক ৭১৩ জনের। একই দিন করোনায় মারা গেছে ৯ জন। এর মধ্যে দুইজন নগরীতে এবং সাতজনের মৃত্যু হয় উপজেলাতে। এ পর্যন্ত চট্টগ্রামে করোনায় প্রাণ গেছে ৭৪৪ জনের।

চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি জানান, প্রতিদিন আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, মৃত্যুও বাড়ছে। এ মুহূর্তে লকডাউন মেনে চলা খুবই প্রয়োজন।