শিরোনাম:

করোনা ও উপসর্গে বিভিন্ন জেলায় ৭৫ জনের মৃত্যু

মহামারি করোনার ধাক্কা সামলাতে পারছে না সারা পৃথিবী। নতুন নতুন ভ্যারিয়েন্টের কাছে বিশ্বের ক্ষমতাধর রাষ্ট্রগুলোও ধরাশায়ী।  টিকা কার্যক্রম চললেও থামছে না সংক্রমণের গতি। এ অবস্থায় দেশেও দিন দিন করোনয় মৃত্যু ও শংক্রমাণ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

[৩] গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গ নিয়ে রাজশাহীতে ১৩, চট্টগ্রামে ৯, কুষ্টিয়ায় ৯, পটুয়াখালীতে ৫, ঠাকুরগাঁয়ে ১, চুয়াডাঙ্গায় ৫, ময়মনসিংহে ১৮ ও বরিশালে ১৬ জনের মৃত্যুর সংবাদ পাওয়া গেছে।

চট্টগ্রাম: চট্টগ্রামে গত ২৪ ঘণ্টায় আরো ৯জন মারা গেছেন। একই সময়ে নতুন আরো ১ হাজার ৪৬৬ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। যা এখন পর্যন্ত এক দিনে সর্বোচ্চ।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) রাতে চট্টগ্রাম জেলা সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এ তথ্য জানা গেছে। এর আগে ২৯ জুলাই সর্বোচ্চ এক হাজার ৩১৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিলো।

জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেখ ফজলে রাব্বি বলেন, চট্টগ্রামের ১১টি ও কক্সবাজারের একটি ল্যাবে তিন হাজার ৯২৩ জনের নমুনা পরীক্ষা করে এক হাজার ৪৬৬ জনের মধ্যে করোনাভাইরাস পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে চট্টগ্রাম নগরেরই এক হাজার ৮৫ জন। বাকিরা বিভিন্ন উপজেলার। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা শনাক্তের হার ৩৭ দশমিক ৩৬ শতাংশ।

রাজশাহী: রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ও উপসর্গে আরও ১৩ জন মারা গেছেন। এরমধ্যে করোনায় ৭ জন এবং উপসর্গ নিয়ে ৬ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এ নিয়ে ৬০ দিনে রামেকে সবমিলিয়ে ৮৮৫ জনের মৃত্যু হয়েছে।

শুক্রবার (৩০ জুলাই) সকালে রামেক হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শামীম ইয়াজদানী আরটিভি নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।