করোনা সচেতনতায় ফরিদপুরে ৭ কি.মি. সড়ক মানববন্ধ

শীতে করোনার প্রকোপ বাড়তে পারে এ আশঙ্কায় ও মহামারী করোনা সচেতনতায় ফরিদপুরে প্রায় ৭ কিলোমিটার জুড়ে মানববন্ধন করা হয়েছে।

শনিবার (৭ নভেম্বর) সকাল ১০টা থেকে সাড়ে ১০টা পর্যন্ত ফরিদপুর জেলা প্রশাসনের আয়োজনে শহরের রাজবাড়ি রাস্তার মোড় থেকে টেপাখোলার সরকারি ইয়াছিন কলেজ পর্যন্ত এ মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়।

মানববন্ধনে জেলা প্রশাসক অতুল সরকার বলেন, মহামারী করোনার দ্বিতীয় পর্যায় মোকাবেলা করতে সরকার বদ্ধপরিকর। তিনি বলেন, করোনা থেকে বাঁচার অন্যতম উপায় সবাইকে মাস্ক পরিধান করে চলতে হবে। মাক্স ছাড়া কেউ কোন সেবা পাবে না। একই সাথে তিনি বলেন, সরকারি-বেসরকারি বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ও ব্যবসা বাণিজ্য প্রতিষ্ঠানে মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এছাড়া কোন দোকানি মাস্ক না পড়লে ক্রেতাদের কাছে মালামাল বিক্রি করবেন না।‌ তিনি সবাইকে সামাজিক নিরাপদ দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল করার জন্য আহ্বান জানান।

এসময় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান, সরকারি রাজেন্দ্র কলেজে অধ্যক্ষ প্রফেসর মোশার্রফ আলী, রাজেন্দ্র কলেজের ইংরেজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক রিজভী জামান, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার আবুল হোসেন শাহ নেওয়াজ, জেলা আওয়ামীলীগ নেত্রী ঝর্ণা হাসান, প্রেসক্লাবের সভাপতি কবিরুল ইসলাম সিদ্দিকী, জেলা শিক্ষা অফিসার বিষ্ণুপদ ঘোষাল, ফরিদপুর ডেভলপমেন্ট অ্যাসোসিয়েশন এফডিএর আজহারুল ইসলাম।

আধঘণ্টা চলা ওই মানববন্ধনে শহরের সকল সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানসহ স্কুল কলেজের হাজার হাজার ছাত্র-ছাত্রীরা অংশ নেয়। এছাড়াও একই সময় জেলার ৯টি উপজেলা সদর স্ব স্ব উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে একই স্লোগানে মানববন্ধন কর্মসূচি পালিত হয়েছে।