টাঙ্গাইলে বিয়ের দাবিতে অনশন করা সেই ছাত্রীর বিয়ে হয়েছে

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে বিয়ের দাবিতে প্রেমিকের বাড়ি অনশন করা সেই অনার্স পড়ুয়া ছাত্রীর বিয়ে হয়েছে। বুধবার (৪ আগস্ট) রাতে উপজেলার বাংড়া ইউনিয়ন পরিষদে দুই পক্ষের উপস্থিতিতে সালিশি বৈঠকে এ বিয়ে সম্পন্ন হয়। বিয়ের দেনমোহর করা হয় ৬ লাখ টাকা। বাংড়া ইউপি চেয়ারম্যান হাসমত আলী বিষয়টি আরটিভি নিউজকে নিশ্চিত করেন।

জানা যায়, সখীপুর উপজেলার কচুয়া গ্রামের অনার্স পড়ুয়া সুমি আক্তারের সঙ্গে কালিহাতী উপজেলা ধুনাইল গ্রামের আশরাফুল ইসলামের ছেলে রবিনের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সুমি রবিনকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানায়। পরে সুমি সোমবার (২ আগস্ট) সকাল থেকে রবিনের বাড়ি বিয়ের দাবিতে অনশন শুরু করেন। বিষয়টি মুহূর্তেই এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায় প্রেমিক রবিন ও তার পরিবারের লোকজন। এদিকে বিয়ের দাবিতে অনড় থাকে সুমি। বিষয়টি নিয়ে বুধবার রাতে বাংড়া ইউনিয়ন পরিষদে দুই পক্ষের উপস্থিতিতে সালিশি বৈঠক হয়। বৈঠকে ৬ লাখ টাকা দেনমোহরে তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়।

বাংড়া ইউপি চেয়ারম্যান হাসমত আলী জানান, সালিশি বৈঠকে উভয়পক্ষের সম্মতিতে ৬ লাখ টাকা দেনমোহরে বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।