শিরোনাম:

পদ্মায় ধরা পড়েছে ১৩ কেজির পাঙাশ

ডেস্ক রিপোর্ট: রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার কুশাহাটা এলাকায় পদ্মা নদীতে গতকাল সোমবার মধ্যরাতে খালেক সরদার ও তাঁর সহযোগীদের জালে ১৩ কেজি ওজনের একটি পাঙাশ মাছ ধরা পড়েছে। মাছটি স্থানীয় মৎস্য ব্যবসায়ী ১৬ হাজার টাকা দিয়ে কিনে নেন। মাছটি বর্তমানে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে পন্টুনের সঙ্গে রশি দিয়ে বেঁধে রাখা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার সকাল পৌনে আটটার দিকে দৌলতদিয়া ফেরিঘাটে দেখা যায়, ৫ নম্বর ফেরিঘাটের পন্টুনের সঙ্গে রশি দিয়ে একটি বড় পাঙাশ মাছ বেঁধে রাখা হয়েছে। এ সময় মাছের ক্রেতা শাকিল-সোহান মৎস্য আড়তের পরিচালক মো. নুরুল ইসলাম বলেন, আজ সকালে দৌলতদিয়া ঘাট বাজারের দুলাল সরদারের আড়তে তিনি ও সম্রাট শাহজাহান শেখ মাছটি দেখে নিলামে অংশ নেন। এ সময় পাঙাশ মাছটি ওজন দিয়ে দেখেন ১৩ কেজি ১০০ গ্রামের মতো হয়েছে। পরে সর্বোচ্চ দরদাতা হিসেবে ১ হাজার ২৫০ টাকা কেজি দরে মোট ১৬ হাজার ৩০০ টাকা দিয়ে তাঁরা কিনে নেন।

শাকিল-সোহান মৎস্য আড়তের পরিচালক মো. নুরুল ইসলাম বলেন, মাছটি দেখতে ঢাকাফেরত অনেক উৎসুক মানুষ ভিড় করেন। মাছটি বিক্রি করতে ঢাকা, কুষ্টিয়াসহ বিভিন্ন অঞ্চলে যোগাযোগ করা হচ্ছে। ১ হাজার ৩০০ টাকা কেজি দরে তিনি মাছটি বিক্রি করতে চান।

গোয়ালন্দ উপজেলার ভারপ্রাপ্ত মৎস্য কর্মকর্তা রেজাউল শরীফ বলেন, পদ্মা নদীর মাছ এমনিতেই সুস্বাদু। বড় কোনো মাছ হলে তো কথাই নেই। পদ্মার বড় মাছের চাহিদা সব সময়ই বেশি। নদীর পানি শুকিয়ে যাওয়ায় কাতলা–জাতীয় বড় মাছ ধরা পড়ছে বেশি। পাঙাশ মাছ মাঝেমধ্যে ধরা পড়ছে। প্রথম আলো