শিরোনাম:

পুনীতের মৃত্যুতে ১৮০০ শিক্ষার্থীর দায়িত্ব নিলেন বিশাল

বিনোদন ডেস্ক: ভারতের দক্ষিনী সিনেমার জনপ্রিয় অভিনেতা পুনিত রাজকুমার। ৪৬ বছরেই শুক্রবার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে কন্নড় সিনেমার এ নায়ক একটি হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি।

পুনীত রাজকুমারের আকস্মিক মৃত্যুতে স্তব্ধ হয়ে গেছে ভক্তরা। তিনি শুধু সুপারস্টারই ছিলেন না, একজন সমাজকর্মীও ছিলেন। তিনি ১৮০০ শিক্ষার্থীর পড়াশোনার খরচ বহন করতেন।

পুনীতের প্রয়াণে তাদের অনিশ্চিত জীবনে আশার আলো দেখালেন তামিল অভিনেতা বিশাল। তার ছবি ‘এনিমি’র প্রচারণা অনুষ্ঠানে এই ছাত্রছাত্রীদের পাশে থাকার কথা দিয়েছেন অভিনেতা।

বিশাল বলেন, ‘পুনীত রাজকুমার শুধু ভালো অভিনেতাই নন, ভালো বন্ধুও। তার মতো সুপারস্টারকে আমি এরকম মাটির মানুষ হতে আর দেখিনি। তিনি অনেক সামাজিক কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত ছিলেন। আমি কথা দিচ্ছি ১৮০০ ছাত্রছাত্রীর পাশে থাকার যাদেরকে বিনামূল্যে পড়ালেখা করার ব্যবস্থা করে দিয়েছিলেন পুনীত রাজকুমার।’

পুনীত রাজকুমারের হঠাৎ মৃত্যুর খবরে শোকাহত পুরো চলচ্চিত্র অঙ্গন সহ তার লক্ষ কোটি ভক্তরা। মাত্র ৪৬ বছর বয়সে তার চলে যাওয়াকে কিছুতেই যেন মেনে নিতে পারছেন না কেউ!

শুক্রবার (২৯ অক্টোবর) জিমে শরীরচর্চা করার সময় হৃদরোগে আক্রান্ত হন পুনীত রাজকুমার। এরপর বেঙ্গালুরুর বিক্রম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

প্রসঙ্গত, পুনিত রাজকুমার কন্নড় সিনেমার বরেণ্য অভিনেতা রাজকুমারের পুত্র। মাত্র ছয় মাস বয়সে প্রথম বড় পর্দায় পা রাখেন পুনিত। এরপর শিশুশিল্পী হিসেবে অনেক সিনেমায় অভিনয় করেন তিনি। শিশুশিল্পী হিসেবে ভারতের জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও পান এই অভিনেতা।