শিরোনাম:

বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গারা মমতার বড় শক্তি : কঙ্গনা

নন্দীগ্রামে লড়াই সেয়ানে সেয়ানে। তবে পশ্চিমবঙ্গের রায় এখনও পর্যন্ত দেখে যা মনে হচ্ছে তাতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অ্যান্ড কোম্পানির পাল্লা ভারী। আর বিজেপির ভরাডুবির ইঙ্গিত স্পষ্ট। এমন পরিস্থিতিতেই বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন বলিউডের কন্ট্রোভার্সি ক্যুইন কঙ্গনা রানাউত।

টুইটারে বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গাদের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সবচেয়ে বড় শক্তি হিসেবে ব্যাখ্যা করলেন তিনি। শুধু তাই নয় পশ্চিমবঙ্গকে কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করলেন কঙ্গনা।

আজ রবিবার যখন পশ্চিমবঙ্গের রাস্তায় রাস্তায় তৃণমূল সমর্থকদের উচ্ছ্বাস শুরু হয়ে যায়, তখন টুইটারে কঙ্গনা লিখলেন, “বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সবচেয়ে বড় শক্তি… যা ট্রেন্ড দেখছি তাতে বাংলায় আর হিন্দুরা মেজরিটিতে নেই এবং তথ্য অনুযায়ী গোটা ভারতবর্ষের তুলনায় বাংলার মুসলিমরা সবচেয়ে গরিব আর বঞ্চিত। ভালো আরেকটা কাশ্মীর তৈরি হচ্ছে।” এই লেখার পরই ‘ইলেকশন ২০২১’ হ্যাশট্যাগ দেন।

নিজেকে বরাবর ‘দেশভক্ত’ হিসেবে দাবি করেছেন কঙ্গনা। সোশ্যাল মিডিয়ায় একাধিকবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসায় পঞ্চমুখ হন তিনি। দিল্লির কৃষক আন্দোলনের সময়ও মোদির পাশে দাঁড়িয়ে ক্ষুব্ধ কৃষকদের একহাত নেন।