শিরোনাম:

বিধিনিষেধে ম্যাজিস্ট্রেটের অভিযান দেখতে উৎসুক জনতার ভিড়!

বিধিনিষেধ অমান্য করে সন্ধ্যায় খুলেছে দোকান ও কাঁচাবাজার সঙ্গে চলছে চায়ের দোকানে আড্ডা। ঠিক এমন সময় ভ্রাম্যমাণ আদালতের গাড়ি এসে হাজির। গাড়ি দেখে দোকানিরা দোকান বন্ধ করতে হয়ে পড়েন ব্যস্ত। এমন পরিস্থিতিতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট অভিযানে কী করছেন, তা দেখতে ভিড় করে উৎসুক জনতা।

বৃহস্পতিবার (৮ আগস্ট) রাত সাড়ে ৮টার দিকে ঝিনাইদহ শহরের ক্লিক মোড়ে এমন ঘটনা ঘটেছে।

অভিযান দেখ আসা নিশান নামের এক যুবক বলেন, প্রায় প্রতিদিন সন্ধ্যার পর থেকে এখানে সব ধরনের দোকানপাট খুলে বসেন দোকানিরা। আজ হঠাৎ করেই ম্যাজিস্ট্রেট এসে জরিমানা করছে। তাই এখানে দাঁড়িয়ে দেখছি। অভিযান দেখতে আসায় যদি জরিমানা দেয় সেজন্য অনেক দূরে আছি। এদিকে আসলে দৌড় দেব।’

অন্ধকারে জটলার মধ্যে দাঁড়িয়ে এক ব্যক্তি বলেন, ‘দোকানের শাটার নামিয়ে চলে আসতে পেরেছি। না হলে জরিমানা দিতে হতো।’

ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জিন্নাতুল ইসলাম জানান, জেলা প্রশাসকের নির্দেশে মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে আমরা নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করে আসছি। আজ রাতে শহরের ক্লিক মোড়ে এসে দেখি বিধিনিষেধ অমান্য করে দোকানপাট খুলেছে। এছাড়া মানুষের জটলা। এই এলাকাসহ আশপাশে বিনা প্রয়োজনে বাড়ির বাইরে বের হওয়া ১০ ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, জেলায় আজ ২৭টি মামলায় ১৩ হাজার ৭০০ টাকা জরিমানা করা হয়। জেলা প্রশাসনের এ ধরনের অভিযান অব্যাহত থাকবে।