মায়ের স্বপ্নপূরণের কথা বললেন কমলা হ্যারিস

মায়ের স্বপ্নপূরণের কথা বললেন কমলা হ্যারিস

বাইডেনের পাশাপাশি ইতিহাস গড়েছেন কমলা হ্যারিসও। যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসে হয়েছেন প্রথম নারী ও কৃষ্ণাঙ্গ ভাইস প্রেসিডেন্ট। বিজয় সমাবেশের মঞ্চে উঠে সবার আগে স্মরণ করলেন মাকে। বললেন, তার স্বপ্নপূরণের কথা। ঘোষণা দিলেন, বর্ণবৈষম্য দূর করতে কাজ করে যাওয়ার।

ডিলাওয়ারের উইলমিংটনে বাইডেনের বিজয় সমাবেশে স্বামী ডগ জোন্সকে নিয়ে মঞ্চে ওঠেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রথম নারী ও কৃষ্ণাঙ্গ ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস। বক্তব্যের শুরুতেই নিজের ভারতীয় মা শ্যামলা গোপালার স্বপ্নপূরণের কথা বলেন।

নবনির্বাচিত মার্কিন ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিস বলেন, আমার মা যখন এদেশে এসেছিলেন, তিনি হয়তো কল্পনাও করেননি তার মেয়ে একদিন যুক্তরাষ্ট্রের ভাইস প্রেসিডেন্ট হবে। তবে, তার বিশ্বাস ছিলো এদেশে বর্ণবৈষম্য যেমন দূর হবে, সেইসাথে একদিন মজবুত হবে নারীর অবস্থান। আজ আমার মায়ের বিশ্বাসকে বাস্তবে রূপ দেয়ার রাত। আমি সে সব নারীর প্রতিনিধি, যারা লক্ষ্যে পৌঁছাতে অবিরাম সংগ্রাম করে চলছেন।

শ্রদ্ধাভরে বাইডেনের সহায়তার কথাও স্মরণ করেন এ ইন্দো-আফ্রো আমেরিকান নারী। বলেন, মার্কিন জনগণ একতা, শিষ্টাচার ও বিজ্ঞানভিত্তিক রাজনীতিকে বেছে নিয়েছে।

নারীদের লক্ষ্যে অটুট থাকার আহ্বানও জানান, কমলা হ্যারিস।

কমলা হ্যারিস বলেন, আমি হতে যাচ্ছি ভাইস প্রেসিডেন্টের চেয়ারে বসতে যাওয়া প্রথম নারী। তবে আমি শেষ নারী নই। আমেরিকার শিশুরা আমাকে দিয়েই স্বপ্ন দেখবে ভবিষ্যতে নিজেদের লক্ষ্যে অটুট থাকার।

কমলার অভাবনীয় এই জয়ে খুশিতে ভাসছে তার মায়ের জন্মভিটা ভারতের চেন্নাইয়ের তুলাসেন্দ্রাপুরাম। এখান থেকে ১৯ বছর বয়সে যুক্তরাষ্ট্রে পাড়ি জমিয়েছিলেন কমলার মা শ্যামলা।