শিরোনাম:

লঙ্কান অধিনায়ককে ফেরালেন পার্টটাইমার সাইফ

স্পোর্টস ডেস্ক: দুই নিয়মিত স্পিনার তাইজুল ইসলাম ও মেহেদি হাসান মিরাজকে সাবলীলভাবেই খেলছিলেন দুর্দান্ত ফর্মে থাকা দিমুথ করুনারাত্নে। আগের দুই ইনিংসের ধারাবাহিকতায় এবারও তুলে নেন ব্যক্তিগত হাফসেঞ্চুরি। তার ব্যাটে চড়ে লিডটাও বাড়িয়ে যাচ্ছিল শ্রীলঙ্কা।

উইকেটের আশায় পার্টটাইম স্পিনার সাইফ হাসানের হাতে বল তুলে দেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মুমিনুল হক। তাতেই মেলে সাফল্য। নিজের তৃতীয় ওভারেই লঙ্কান অধিনায়ককে সাজঘরে পাঠিয়ে দেন সাইফ। টানা তৃতীয় সেঞ্চুরি করার আশা শেষ হয়ে যায় করুনারাত্নে।

আউট হওয়ার আগে ৭৮ বলে ৬৬ রান করেন লঙ্কান অধিনায়ক। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত শ্রীলঙ্কার সংগ্রহ ২৭ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১১২ রান। প্রথম ইনিংসে পাওয়া ২৪২ রানসহ লঙ্কানদের লিড এখন ৩৫৪ রানের। চারশ ছাড়িয়ে ইনিংস ঘোষণার লক্ষ্য শ্রীলঙ্কার।

আগেরদিন ৭ ওভার ব্যাটিং করে ২ উইকেট হারিয়ে ১৭ রান করেছিল শ্রীলঙ্কা। আজ শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলার ইঙ্গিত দেন দুই অপরাজিত ব্যাটসম্যান করুনারাত্নে ও ম্যাথুজ। তাইজুল ও মেহেদি মিরাজের ভিন্ন ভিন্ন ওভারে ছক্কা হাঁকান দুজনই।

তবে ম্যাথুজকে বেশিক্ষণ হাত খুলে দেননি তাইজুল। ইনিংসের ১৪তম ওভারের তৃতীয় বলে ম্যাথুজকে শর্ট লেগে দাঁড়ানো ইয়াসির আলি রাব্বির হাতে ক্যাচে পরিণত করে সাজঘরে পাঠান তাইজুল। আউট হওয়ার আগে ৩৫ বলে ১২ রান করেন ম্যাথুজ।

এরপর ধনঞ্জয় ডি সিলভাকে নিয়ে জুটি গড়েন করুনারাত্নে। তাদের চতুর্থ উইকেট জুটিতে আসে ৭৩ রান। দুজনই রান তুলতে থাকেন ওয়ানডে মেজাজে। তাইজুল-মিরাজকে দিয়ে কাজ হচ্ছিল না দেখে ইনিংসের ২১তম ওভারে তাসকিন আহমেদকে আক্রমণে আনেন মুমিনুল।

তাতেও ফায়দা হয়নি। তাই শেষমেশ পার্টটাইমারের দ্বারস্থ হন বাংলাদেশ অধিনায়ক। সাইফের ব্যক্তিগত তৃতীয় ওভারের শেষ বলে শর্ট লেগে দাঁড়ানো বদলি ফিল্ডার ইয়াসির আলি রাব্বির হাতে ধরা পড়েন ৬৬ রান করা করুনারাত্নে।