সালমান খানের দুই ভাই ও এক ভাতিজার নামে মামলা

বলিউড সুপারস্টার সালমান খান করোনাকালীন অনেক সতর্ক অবস্থায় ছিলেন। পুরো পরিবারকে তিনি রেখেছিলেন নিরাপত্তার বলয়ে। সেই পরিবারের দুই সদস্যই কিনা কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম ভেঙেছেন। তাই তাদের নামে থানায় মামলা করা হয়েছে।

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল জানায়, বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনের নিয়ম ভঙ্গ করেছেন সালমান খানের দুই ভাই অভিনেতা আরবাজ খান, সোহেল খান এবং তার ছেলে নির্বান খান। তাদের বিরুদ্ধে এমনই অভিযোগ তুললো বৃহন্মুম্বই পুরনিগম (বিএমসি)।

তাদের বিরুদ্ধে সোমবার খার থানার পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগও করা হয়েছে।

বিএমসি জানায়, গত ২৫ ডিসেম্বর সংযুক্ত আরব আমিরশাহী থেকে ফিরেছিলেন তিনজন। কোভিড-১৯ এর বিধি অনুযায়ী, তাদের সাতদিনের জন্য বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনে থাকার কথা ছিল। বিদেশ থেকে আসা কারও থেকে যাতে সংক্রমণ না ছড়ায়, সেই কারণেই এ নিয়ম পালন করতে হচ্ছে।

বিএমসির অভিযোগ, বিমানবন্দর ছাড়ার সময় আরবাজ, সোহেল ও নির্বান কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছিলেন যে তারা বান্দ্রার এক হোটেলে সাতদিন আলাদা থাকবেন। তারপর বাড়ি ফিরবেন। কিন্তু এখন জানা গেছে, ২৬ ডিসেম্বরই নিজেদের হোটেল বুকিং বাতিল করে দিয়েছিলেন তারা। প্রত্যেকেই বাড়ি ফিরে গেছেন।

এ খবর সামনে আসতেই তাদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে বিএমসি।

তাদের বিরুদ্ধে মহামারি আইন ভাঙার মামলা রুজু হয়েছে। তবে এফআইআর অনুযায়ী, সালমানের ছোট ভাই সোহেল জানিয়েছেন, তিনি ও আরবাজ ২৫ ডিসেম্বর দেশে ফিরলেও তার ছেলে আসে ৩০ তারিখ। বিমানবন্দরে তাদের করোনা পরীক্ষাও হয়েছিল। রিপোর্ট নেগেটিভ আসায় কোয়ারেন্টাইনে না থেকে তারা বাড়ি ফিরে যান।

কিন্তু বিএমসির সাফ বক্তব্য, আইন প্রত্যেকের জন্য একইরকম হওয়া উচিত। আগামী ১৪ দিন তিনজনকে হোটেলে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে তাদের তরফে। সাতদিন পর কোভিড টেস্ট হবে। রিপোর্ট নেগেটিভ এলে তারা বাড়ি যেতে পারবেন।