শিরোনাম:

৬০ হাজার মুসলিম নিয়ে শুরু হচ্ছে পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা

সৌদি আরবের স্থানীয় সময় রাত পর্যন্ত মক্কায় মসজিদুল হারামে উপস্থিত হতে থাকবেন এবারের হজের জন্য নির্বাচিত মুসল্লিরা।

রোববার (১৭ জুলাই) শুরু হবে হজের মূল কার্যক্রম। করোনা মহামারির কারণে সীমিত পরিসরে মাত্র ৬০ হাজার মুসলিম এবার হজে অংশ নিচ্ছেন।
শুরু হচ্ছে পবিত্র হজের আনুষ্ঠানিকতা

সৌদি আরবে শনিবার সকাল থেকে শুরু হয়ে রাত পর্যন্ত মক্কায় উপস্থিত হবেন মুসল্লিরা। তারা ওমরাহ পালন করবেন। পরদিন ৮ জিলহজ মিনার উদ্দেশ্যে রওয়ানা হবেন হাজিরা। এদিন দিবাগত রাতে শুরু হবে হজের মূল কার্যক্রম।

আগামী ১৯ জুলাই আরাফার দিন পালিত হবে পবিত্র হজ। পরদিন পশু কোরবানির মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হবে মূল কার্যক্রম। করোনা মহামারির মধ্যে এবারও সীমিত পরিসরে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে হজে অংশ নেবেন মুসল্লিরা।

বাইরের কেউ সুযোগ না পেলেও সৌদিতে থাকা ১৫০টি দেশের নাগরিকসহ অংশ নিচ্ছেন ৬০ হাজার মানুষ। এর মধ্যে অনেক বাংলাদেশিও রয়েছেন। প্রবাসীরা বলেন, বাংলাদেশি অনেক ভাই এ বছর হজ করার সুযোগ পেয়েছেন। আমাদের হজের উছিলায় যাতে পৃথিবী করোনাভাইরাস মহামারি থেকে রক্ষা পায়। দোয়া করি পরম করুণাময় আল্লাহ এ বছর হজ যেন সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন হয়।

এদিকে, মক্কা, আরাফা, মিনা ও মুজদালিফায় চলাচলে হাজিদের জন্য প্রস্তুত রাখা হয়েছে ৩ হাজার বাস। এর সঙ্গে থাকছে তাৎক্ষণিক সেবা প্রদানের জন্য ৫১টি স্বাস্থ্যসেবা কেন্দ্র। ৫৯৪ চিকিৎসক ছাড়াও হজের মাঠে থাকবেন আরও ৩০০ স্বাস্থ্যকর্মী।

এবারই প্রথম সৌদি সরকার মুসল্লিদের জন্য হজ অনুমতিপত্র তাছরিহ্ এর সঙ্গে স্মার্ট কার্ডের ব্যবস্থা করেছে। হাজিদের নিরাপত্তার স্বার্থে এবং অবৈধ অনুপ্রবেশ ঠেকাতে নির্বাচিত মুসল্লিদের দেওয়া হয়েছে ছবিসহ এই স্মার্ট কার্ড।